যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্রদের সিরিয়ায় বিমান হামলা

সিরিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বে বিমান হামলা চালানো হয়েছে। একযোগে অংশ নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স।  বিভিন্ন স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে তারা।

আজ শনিবার সকালে আসাদ সরকার নিয়ন্ত্রিতন সিরিয়ার দুমা শহরে বাশার আল–আসাদের বাহিনীর রাসায়নিক হামলার জবাবে এ বোমা হামলা চালানো হয়েছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে রাসায়নিক হামলার পরিপ্রেক্ষিতে হামলা শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশ যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স। খবর বিবিসির

গত সপ্তাহে সিরিয়ার দুমা এলাকায় রাসায়নিক হামলার পর পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সরকার দুমায় রাসায়নিক হামলার কথা অস্বীকার করে আসছিল।

বিবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্র চারটি টর্নেডো জেট বিমান দিয়ে হোমস শহরের কাছে একটি সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে। এই ঘাঁটিতে রাসায়নিক অস্ত্রের মজুদ রয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

হামলার ঘটনায় সিরিয়ার মিত্র দেশ রাশিয়া তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে রাশিয়া বলেছে, এ ধরনের আক্রমণের প্রতিক্রিয়া অবশ্যই পাওয়া যাবে।